মাগুরায় লকডাউনে টিসিবির পণ্য কিনতে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন।

মাগুরা প্রতিনিধি

28

মাগুরায় লকডাউনে টিসিবির পণ্য কিনতে ক্রেতাদের দীর্ঘ লাইন দেখা গিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত  শহরের নতুন বাজার ভুমি অফিসের সামনে দেওয়া হচ্ছিল এ পণ্য।

মাগুরায় দ্বিতীয় সপ্তাহের চলছে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন। লকডাউনে সাধারণ মানুষ  ও যান চলাচলে রয়েছে কঠোর বিধিনিষেধ।

এই লক ডাউনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছে দিন মজুরসহ সাধারণ নিম্ন আয়ের মানুষেরা। শহরের সব ফুটপাত ও ক্ষুদ্র মুদি দোকানপাটও বন্ধ।

শহরতলীর  নিজনান্দুয়ালী গ্রামের দরিদ্র হালিমা,রাবেয়া, চরপাড়ার রোকেয়াসহ বিভিন্ন সাধারণ মানুষ সকাল থেকেই টিসিবির পন্য কেনার জন্য দাঁড়িয়েছে লাইনে।

অনেকে দাঁড়িয়েছেন গা ঘেষে ,আবার অনেকে একটু সামন্য দূরত্বে আছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা  থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের নতুন বাজার ভূমি অফিসের সামনে দেওয়া হচ্ছিল এ পণ্য।

যা কিনতে ভিড় করেছে প্রায় দুই শতাধিক নারী-পুরুষ। পণ্য কিনতে আসা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী বাবু জানান, কঠোর লকডাউনে আমার দোকান বন্ধ।

ঘরে চাউলসহ অন্যান্য জিনিসের সংকট রয়েছে। আজ টিসিবির পণ্য কিনতে এখানে এসেছি। লাইনে দাঁড়িয়ে আছি প্রায় ১ ঘন্টা, কখন পন্য পাব জানি না।

পণ্য কিনতে আসা কেজি স্কুলের শিক্ষক শাহ আলম জানান, দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ থাকার কারণে সংসার চালাতে পারছি না। টিসিবির পণ্যে কিছুটা স্বল্প মূল্যে পাওয়া যায়,তাই এখানে আসা।

টিসিবির ডিলাররা জানান, লকডাউনের শুরুতে পণ্য বিক্রয়ে প্রশাসনের কোন অনুমতি ছিল না। তাই লকডাউনের দ্বিতীয় সপ্তাহের বৃহস্পতিবার পাওয়া গেল প্রশাসনের অনুমতি।

সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে খুব সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেওয়া হচ্ছে পণ্য। বর্তমানে দেওয়া হচ্ছে ২ লিটার তেল.২ কেজি ডাল,২ কেজি চিনি ও ২ কেজি আলু।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নন এমপিও কলেজের শিক্ষক জানান, সাধারণ মানুষের মধ্যে  টিসিবির  পণ্যের পরিমাণ আরো বাড়ানো প্রয়োজন।

Previous articleরাঙামাটিতে সন্ত্রাসীদের দফায় দফায় গুলি বিনিময়ঃ একজনের লাশ উদ্ধার
Next articleরাঙামাটিতে দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের গোলাগুলিতে নিহত ১: মধ্যরাতে গুলিবিদ্ধ সন্ত্রাসীর লাশ উদ্ধার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here