আমাকে সবাই বলে কবরীর নায়িকা, এটাই অর্জন: সালওয়া

8

বরেণ্য অভিনেত্রী কবরী তার নতুন ছবির জন্য নায়িকা খুঁজছেন। এমন একটা খবর চাউর হয়ে গেলে এফডিসিতে দেখা হয়ে যায় নিশাত নাওয়ার সালওয়ার সঙ্গে। তখনই আলাপ হয় দুজনের। তারপর চুক্তিবন্ধ হন কবরীর সর্বশেষ সিনেমা ‘এই তুমি সেই তুমি’তে।

সরকারি অনুদানে নির্মিত এই ছবির শুটিং শেষ হয়েছে। চলছিল ডাবিং। এরই মধ্যে গতরাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কবরী।

নিশাত সালওয়া বলেন, ‘আমাকে সবাই কবরীর নায়িকা হিসেবে চেনেন। এটা আমার সবচেয়ে বড় অর্জন। কারণ এটা ছবির মাধ্যমে আমার চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু।

ওনার সাথে আমার প্রথম দেখা হয় এফডিসিতে ২০১৯ সালের ১৬ মার্চ। তারপর চুক্তিবদ্ধ হই ওই ছবিতে। শুটিংও শুরু হয়।

শুটিংয়ের আগে আমরা রিহার্সাল করি তার বাসায়। তখনই বুঝতে পারি কবরী আপা কত বড় মনের মানুষ।’

“অভিনয় করতে গিয়ে তার বকা যেমন খেয়েছি, আদর পেয়েছি, আবার শিখেছি। উনি প্রায়ই বলতেন, ‘শোনো, মানুষ কিন্তু সিনেমায় তোমাকে দেখবে, তোমার অভিনয় দেখবে। পেছনের কিছু দেখবে না। তাই যতদূর পার ভালোমতো কর।’

ওনার শিখিয়ে দেওয়া বিষয়গুলো ধরে ধরে অভিনয় করতাম। আমার জীবনের অন্যতম প্রাপ্তি তার মতো গুণী মানুষের সান্নিধ্য পাওয়া ও তার ছবিতে কাজ করা,” বলেন সালওয়া।

তিনি জানান, কবরীর সঙ্গে তার শেষ কথা হয় ৫ এপ্রিল। তখন চাঁদপুরে অন্য একটা ছবির কাজ শেষ করে ফিরছিলেন তিনি। “ওই সময় কবরী আপা ফোন করে আমাকে অভিমানের সুরে বলেন, ‘আমাকে তো ভুলেই গেছ।’ আমি হাসলাম। দেখা করতে চাইলাম।

কবরী আপা বললেন, ‘এসো না। আমার জ্বর জ্বর লাগছে। তুমি রেস্ট নাও, আমিও সুস্থ হই। তারপর সিনেমার বাকি কাজগুলো শেষ করব।'”

তারপর আর কথা হয়নি। হুট এমন মৃত্যু সংবাদে ভেঙে পড়েছেন সালওয়া। তিনি বলেন, ‘আমার বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে যে কবরী আপা নেই। আমি মেনে নিতে পারছি না।’

Previous articleএকের পর এক নক্ষত্রের পতনে শূন্য হয়ে যাচ্ছে চলচ্চিত্র মাধ্যম: শাকিব খান
Next articleকোন পথে জবি ছাত্রলীগ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here