লাশকাঁটা ঘরে

143
Anisur Rahman

লাশকাঁটা ঘরে
-আনিসুর রহমান

হে বন্ধুগণ,
আমাকে মিছে খোঁজ না
আমি তোমাদের ছেড়ে পালিয়েছি
কিন্তু, পালিয়ে বেশি দূর এগোতে পারিনি।
কারা যেন আমায় আটকে দিয়েছে এখানে,
আমি তাদেরকে চিনি না
আমার হাত পা মুক্ত কিন্তু,
সবকিছু আমার স্পর্শের বাহিরে।

নি:শব্দে শুয়ে আছি কিন্তু ঘুম আসছে না
আমি দিব্বি সব কিছু দেখতে পাচ্ছি
কিন্তু সব কিছু আমার গণ্ডির বাহিরে
তবে, এখানে নেই কোন কোলাহল,
নেই কোন হাহাকার,
নেই ভেদাভেদ, আত্নসম্মানের লড়াই।
সবকিছু শান্ত, নীরব-নিথর
নেই প্রেম-ভালোবাসা, হিংসা, দ্বেষ
মারামারি-কাটাকাটি।

আর, থাকবে কি করে
সবাই যে মহাযাত্রায়!
অশ্বথ গাছের নিচে দড়ি হাতে
জোনাকিদের সাথে প্যাঁচার সাথে দোলছিলাম,
কিছু দুষ্টু বালকের চেঁচামেচিতে
আমাকে শক্ত করে আমার হাতের দড়ি দিয়ে বেঁধে
চাটাই মোড়া করে নিয়ে আসা হলো এখানে,
লাশকাটা ঘরে।
আমার ভয় হচ্ছে না কেন?
শুনছি ওরা আমায় ব্যবচ্ছেদ করবে
আমার নাড়ীভুঁড়ি, কিডনি, চোখ, মগজ,
অন্ত্র, তন্ত্র সব খোঁজে,
পালানোর রহস্য বের করবে।
সত্যি, ওরা তা পারবে?
তারা হয়তো আমার পালানোর পথটি খুঁজে পাবে
কিন্তু কারণ খুঁজে পাওয়া কি এতোই সহজ!
আমি একা লাশকাঁটা ঘরে
ইঁদুর, চামচিঁকা, বাদুর, শিয়ালের সাথে বসবাস।

আমার বন্ধু এখন জল্লাদ
নিপূণ হাতে সে আমার শরীরে
তার তুলি চালাবে
তারপর নকঁশী কাঁথার নকঁশী সেলাইয়ে
আমাকে রক্তিম নঁকশায় সাজিয়ে
আবার তোমাদের মাঝে পাঠাবে।
না, চলে আসার আগে অভিমান ছিল
এখন সকল অভিমানের উর্দ্ধে আমি।
তোমাদের প্রতি-
শুধু ভালোবাসা, আর ভালোবাসা….

আনিসুর রহমান
কবি ও ব্যাংক কর্মকর্তা

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here