পিঁপড়েরা কখনো ঘুমায় না!

9

না মানে, পিঁপড়ে কখনও ঘুমায় না, এটা কে, কবে বলল? কেনই বা বলল?! পিঁপড়ে পরিশ্রমী, ঠিক আছে। পিঁপড়ে মানুষের থেকে বেশি ওজন বইতে পারে (অনুপাত অনুসারে), ঠিক আছে।

একজন রানি পিঁপড়ে দিনে ৮০০টা ডিমও পারতে পারে, সেটাও ঠিক আছে! কিন্তু পিঁপড়ে কখনও ঘুমায় না – এটা কে বলল? কারণ, এটা একটা মারাত্বক ভুল তথ্য, যেটা “আমরা জানি” বলে ‘গছিয়ে’ দেওয়া হচ্ছে।

সমস্ত ধরণের প্রাণীরই বেঁচে থাকতে হলে তিনটে জিনিস লাগে। খাদ্য, আশ্রয় আর পর্যাপ্ত ঘুম। সে তুমি সিংহই হও, বা মানুষই হও, বা ইঁঁদুরই হও। বা, কোনও পোকা-মাকড়ই হও। ওই তিনটে জিনিস লাগবেই লাগবে।

কাজেই, পিঁপড়ে ঘুমোবে না কেন? তারা দারুণ ভাবে ঘুমোয়, কোনও কোনোদিন আমার থেকেও বেশি ঘুমোয়। ওদের রাণি প্রত্যেক দিনই আমার থেকে অনেক বেশি ঘুমোয়!

কিন্তু আমরা তা ঠিক বুঝতে পারি না। এর নেপথ্যেও আছে পিঁপড়েরাই। দুটো কারণের জন্য ‘পিঁপড়ের ঘুম’ দেখা যায় নাঃ

  1. তারা মানুষদের মতো টানা ঘুমোয় না। আমরা টানা ৬-৭ ঘন্টা ঘুমোই। ওরা সেটা করে না। ওরা কিছুটা “power nap”-এর মতো জিনিস নেয়।
    1. সারা দিনে ওরা ২৫০ বার তন্দ্রা যায়।
    2. প্রত্যেকটা তন্দ্রার সময় হচ্ছে ১ মিনিটের একটু বেশি
    3. ফলে, সারা দিনে একটা পিঁপড়ে প্রায় ৪ ঘন্টা, বা তার থেকে একটু সময় ধরে ঘুমোয়।
    4. ও হ্যাঁ, রাণি পিঁপড়ে সাধারণত দিনে ৯ ঘন্টা ঘুমোয়।
  2. দিনের যে কোনও সময় পিঁপড়েদের একটা বাসাতে ৮০% পিঁপড়ে জেগে থাকে। এটা একটু ঝামেলার।
    1. দেখো, পিঁপড়ে সারা দিনে ২৫০ বার তন্দ্রা গেলেও, কে কখন যাবে (তন্দ্রা), সেটা আপাতভাবে দেখতে “irregular” হলেও, আদপেই সেরকম নয়।
    2. প্রত্যেকটা পিঁপড়ে তার বরাদ্দ ২৫০ বারটাকে এমনভাবে গুছিয়ে নেয়, যাতে সে যখন ঘুমোচ্ছে, সেই সময়ে তার বাসায় অন্তত ৮০% পিঁপড়ে জেগে থাকে।
    3. মানে, এক কথায়, এরা পালা করে করে তন্দ্রা যায়। কিন্তু, মাত্র ২০% পিঁপড়ে এক একবারে ঘুমোতে যাচ্ছে বলেই বাইরের কেউ বুঝতেই পারে না, পিঁপড়েরা ঘুমোলো কখন।

কাজেই, পিঁপড়ে ঘুমোয় না, এটা একটা মারাত্বক ভুল কথা, বা ধারণা। সমস্ত প্রাণিকেই ঘুমোতে হয়। নাহলে সে কাজ করার মতো শক্তি পাবে কি করে?

Previous articleআলাদাভাবে ঘুমায় জাপানে বিবাহিত দম্পতিরা!
Next articleস্বপ্নের পদ্মাসেতুতে এ বছরের জুনে শুরু হবে যান চলাচল: ওবায়দুল কাদের

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here