নিউজিল্যান্ডে তাসকিন-সৌম্যদের নতুন অভিজ্ঞতা

8

তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে নিউজিল্যান্ড গেছে বাংলাদেশ দল। অন্যান্যবারের চেয়ে এবারের অবস্থা একবারেই ভিন্ন। করোনাভাইরাসের কারণে বাড়তি ১৪ দিন হাতে নিয়ে সফরে যেতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

প্রথম সাতদিন পুরোপুরি আইসোলেশনে থাকতে হবে বাংলাদেশের ক্রিকেটার, কোচিং স্টাফসহ দলের সঙ্গে যাওয়া সবাইকে। 

ক্রাইস্টচার্চে পৌঁছেই হোটেলবন্দি হয়ে পড়েন সবাই। এর মাঝে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে একবার, তাতে সবার ফলই নেগেটিভ এসেছে। বন্দি অবস্থায় পরিবারের সঙ্গে কথা বলে, সিনেমা দেখে, রুমের মধ্যে ফিটনেসের কাজ করে সময় কাটছে ক্রিকেটারদের। 

৪৮ ঘণ্টা পর শুক্রবার রুম থেকে বের হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন তারা। বের হলেও মানতে হয়েছে বিধি নিষেধ। নিজেদের মধ্যে ২ মিটারের দূরত্ব রেখে ৩০-৪০ মিনিটের মতো হেঁটেছেন ক্রিকেটাররা।

বিদেশ সফরে এমন অভিজ্ঞতা এবারই প্রথম। এই অভিজ্ঞতার মাঝে রুম থেকে একটু বের হতে পেরে স্বস্তির নিশ্বাসই ফেলেছেন তাসকিন আহমেদ, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনরা। 

একটি ভিডিও বার্তায় তাসকিন বলেছেন, ‘এমন আইসোলেশন আলাদা অভিজ্ঞতা। আর আগে কখনও এভাবে সময় কাটানো হয়নি। প্রায় ৪৮ ঘণ্টা পর আমরা ৩০-৪০ মিনিটের জন্য ২ মিটার দূরত্ব বজায় রেখে হাঁটার সুযোগ পেয়েছি, এখন আবার রুমে চলে এসেছি। তাও ভালো লাগছে যে টানা দুই দিন একেবারে বন্দি থাকার পর বের হতে পেরেছিলাম।’

তাসকিনের চাওয়া এই অভিজ্ঞতা দ্রুতই শেষ হোক, মাঠে ফিরতে পারলে যেন হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন তিনি, ‘প্রথম করোনা পরীক্ষায় সবাই নেগেটিভ আসার পর আমাদের হাঁটতে দিয়েছে।

আরও কিছু টেস্ট বাকি আছে। এর পর আমরা অনুশীলন শুরু করতে পারব। সব মিলিয়ে আলাদা অনুভূতি। যতো দ্রুত এই অভিজ্ঞতাটা শেষ হয়, ততোই ভালো।’

হোটেলবন্দি অলস সময় কাটানো নিয়ে ডানহাতি এই পেসার বলেন, ‘পরিবারের সঙ্গে ফোনে কথা বলে, সিনেমা দেখে সময় কাটছে। বিসিবি থেকে কিছু ব্যান্ডস ও সাইক্লিয়ের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে।

যেসব শরীরচর্চা রুমে করা সম্ভব, সেগুলোর জন্য কর্মসূচি দেওয়া হয়েছে। শরীরচর্চা, সিনেমা দেখা, পরিবারকে সময় দেওয়া; সব মিলিয়ে এভাবেই সময় কেটে যাচ্ছে।’

২০ মার্চ ডানেডিনে প্রথম ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে সিরিজ। ২৩ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় ওয়ানডে। এই ম্যাচটি হবে দিবা-রাত্রির। ২৬ মার্চ ওয়েলিংটনে শেষ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড।

ওয়ানডের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে দুই দল। ম্যাচ তিনটি ২৮, ৩০ মার্চ ও ১ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। নেপিয়ার, অকল্যান্ড ও হ্যামিল্টনে টি-টোয়েন্টিতে লড়বে দুই দল।

বাংলাদেশ সর্বশেষ ২০১৯ বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়েছিল। সেবার ক্রাইস্টচার্চে সন্ত্রাসী হামলার কারণে সফর শেষ না করেই দেশে ফিরে এসেছিল বাংলাদেশ দল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here