কানাডা প্রবেশে বাধা ৪ শরও বেশি মার্কিন নাগরিককে

9

কানাডা ও আমেরিকার সীমান্ত বন্ধ থাকায় অনেকেই পড়েছেন বিপাকে। নিকটাত্মীয়দের যাতায়াতের অনুমতি থাকলেও বিশেষ করে বিপাকে পড়েছে অভিবাসীরা।

গত মার্চে করোনার কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয় কানাডা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত। তবে জরুরি সেবা কাজে নিয়োজিত যেমন স্বাস্থ্যসেবা, এয়ারলাইন ক্রু এবং ট্রাক ড্রাইভারদের মতো প্রয়োজনীয় আন্তঃসীমান্ত কর্মীদের এখনও বর্ডার পার হওয়ার অনুমতি রয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার পরেও  গত মাসে শপিং ও দর্শনীয় স্থানে ভ্রমণের জন্য কানাডায় প্রবেশের চেষ্টা করে বাধার মুখে পড়ে অন্তত: তিন হাজার ৪০০ এরও বেশি মার্কিন নাগরিক।

কানাডা বর্ডার সার্ভিসের নতুন পরিসংখ্যান অনুসারে, গত মাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরও ৩,৪৪১ জন ভ্রমণকারীকে কানাডায় প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

কানাডা- যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তটি ৬ মাসেরও বেশি সময় ধরে যাত্রীদের জন্য বন্ধ রয়েছে, তবে হাজারো আমেরিকান এই বার্তাটি পাচ্ছে বলে তাদের আচরণ দেখে মনে হচ্ছে না।

করোনাভাইরাসের আতঙ্কের পর নতুন দুশ্চিন্তায় জীবন পার করছেন কানাডা বসবাসরত অবৈধ অভিবাসীরা। দেশটিতে প্রতিনিয়ত বাড়ছে অভিবাসীদের রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়ার আবেদন।

সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে আবেদন বাতিলের সংখ্যা। এ অবস্থায় স্থায়ীভাবে বসবাসের অনুমতি দিতে, প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে অবৈধ অভিবাসীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here