একের পর এক নক্ষত্রের পতনে শূন্য হয়ে যাচ্ছে চলচ্চিত্র মাধ্যম: শাকিব খান

10

‘আজও সোনালি অতীতের চলচ্চিত্র ও তৎকালীন স্টারদের প্রসঙ্গ এলে প্রথমসারির নায়কদের কাতারে আসে ওয়াসিমের নাম।’ বাংলাদেশি চলচ্চিত্রের এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় নায়ক ওয়াসিমের প্রয়াণে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এ সময়ের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান।

শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ২টায় নিজের ফেসবুক পেজে তিনি লিখেন, ‘আবারও চলচ্চিত্রাঙ্গনে শোকের মাতম। একের পর এক নক্ষত্রের পতনে শূন্য হয়ে যাচ্ছে এ মাধ্যমটি। কবরী আপা চলে যাওয়ার বিষাদের মধ্যে সোনালি দিনের জনপ্রিয় নায়ক ওয়াসিম আঙ্কেল মারা গেলেন।’

‘ফোক ফ্যান্টাসি ধারার চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ওয়াসিম আঙ্কেল ৭০-৮০-এর দশকে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। ওইসব চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নায়ক হিসেবে আলাদা গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করেছিলেন তিনি।

তাই আজও সোনালি অতীতের চলচ্চিত্র ও তৎকালীন স্টারদের প্রসঙ্গ এলে প্রথমসারির নায়কদের কাতারে আসে ওয়াসিম আঙ্কেলের নাম। তিনি ছিলেন সুঠাম, সুদর্শন ও পরিপূর্ণ এক নায়ক,’ লিখেন শাকিব।

তিনি আরও লিখেন, ‘বেশ কিছুদিন আগে জেনেছিলাম ওয়াসিম আঙ্কেল দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। অবশেষে  চলে গেলেন। তার চলে যাওয়ায় আরও এক অভিভাবক হারালো বাংলা চলচ্চিত্র।’

উল্লেখ্য, বেশ কিছুদিন গুরুতর অসুস্থ থাকার পর রাজধানীর শাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ওয়াসিম।

শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

১৯৭৪ সালে ‘রাতের পর দিন’ চলচ্চিত্রে মধ্য দিয়ে নায়ক হিসেবে অভিষেক ঘটে ওয়াসিমের। সত্তর ও আশির দশকজুড়ে ফোক ফ্যান্টাসি ও অ্যাকশন চলচ্চিত্রে শীর্ষ নায়কদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন তিনি। অভিনয় করেছেন দেড় শতাধিক চলচ্চিত্রে।

তার অভিনীত জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ‘দি রেইন’, ‘ডাকু মনসুর’, ‘জিঘাংসা’, ‘কে আসল কে নকল’, ‘বাহাদুর’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘মানসী’, ‘দুই রাজকুমার’, ‘সওদাগর’, ‘নরম গরম’, ‘ঈমান’ প্রভৃতি।

টিবিএস

Previous articleকরোনা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী
Next articleআমাকে সবাই বলে কবরীর নায়িকা, এটাই অর্জন: সালওয়া

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here